জুম্মা মোবারক মেসেজ | জুম্মা মোবারক ক্যাপশন

জুম্মা মোবারক মেসেজ, জুম্মা মোবারক ক্যাপশন জুম্মা মোবারক হলো গরিবের হজের দিন। জুম্মার দিনে মসজিদে সবাই একসাথে নামাজ আদায় করে থাকে।

আচ্ছালামু আলাইকুম প্রিয় দর্শক - আজকের আইডিয়ার পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। আজকে আমি আপনাদের মাঝে জুম্মা মোবারক মেসেজ | জুম্মা মোবারক ক্যাপশন নিয়ে আলোচনা করব।

জুম্মা মোবারক মেসেজ | জুম্মা মোবারক ক্যাপশন সম্পর্কে আরো জানতে গুগলে সার্চ করতে পারেন অথবা আমাদের ওয়েব সাইটে অন্যান্য পোস্টগুলো পড়তে পারেন। তো চলুন আমাদের আজকের মূল বিষয়বস্তুগুলো এক নজরে পেজ সূচিপত্রতে দেখে নেয়া যাকঃ

জুম্মা মোবারক মেসেজ, জুম্মা মোবারক ক্যাপশন, জুম্মা মোবারক হলো গরিবের হজের দিন। জুম্মার দিনে মসজিদে সবাই একসাথে নামাজ আদায় করে থাকে। জুম্মার ফজিলত অনেক বেশি। জুম্মার দিনে সবার সাথে সালাত আদায় করা বেশি সওয়াব এর কাজ। জুম্মা নামাজের গুরুত্ব অনেক বেশি। তাই জুম্মা মোবারক মুসলিমদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

জুম্মা মোবারক মেসেজ

এছাড়া জুম্মার দিন জুম্মা মোবারক পিকচার স্ট্যাটাস এসএমএস ছন্দ যদি আমরা আমাদের সকল পরিচিত অপরিচিত মানুষদের মধ্যে শেয়ার করে থাকি। তাহলে অবশ্যই জুম্মার নামাজ সম্পর্কে আরো পরিপূর্ণ ধারণা লাভ করতে পারব। এবং জুম্মার দিনের গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত সমুহ পরিপূর্ণভাবে অর্জন করতে পারব।

কিন্তু এটা খুবই দুঃখজনক ও পরিতাপের বিষয় যে, আমরা এই ভালো কাজগুলো করতে তেমন আগ্রহ দেখাই না। আর যে সব কাজে পাপের বোঝা ঘুচে গেছে, সেই সব কাজের প্রতি আমাদের প্রবল আগ্রহ। কিন্তু এটা প্রত্যেক মানুষ ও মুসলমানের দায়িত্ব।

তাই আসুন জুম্মা মোবারককে কেন্দ্র করে এর ফযীলতের সকল আয়োজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রত্যেক মুসলমানের মাঝে শেয়ার করি যাতে আমরা জুম্মার দিন জুম্মার নামাজ এবং এর বিষয়গুলো সম্পর্কে আরো সুনির্দিষ্ট ধারণা পেতে পারি। এবং আমরা সকল দায়িত্ব পালন করতে পারি।


জুম্মা মোবারক মেসেজ

জুম্মা মুবারক সম্পর্কে আমাদের প্রিয় নবী হজরত মুসা আলাই সালাম একটি হাদিসে বলেছেন- “যখন কোনো ব্যক্তি জুমার নামাজের উদ্দেশ্যে মসজিদের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়, আল্লাহ তাকে একটি নেকী দান করেন এবং প্রতিটি পদক্ষেপের জন্য একটি গুনাহ মাফ করে দেন যতক্ষণ না সে ফিরে আসে। চলুন আমরা এখনই জেনে নেই জুম্মা মোবারক মেসেজ ও জুম্মা মোবারক ক্যাপশন ;

হযরত আবু লুবাবা ইবনে আবদুল মুনযির (রা:) থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ (সা:) বলেছেন, জুমু’আর দিন সকল দিনের সরদার। আল্লাহর নিকট সকল ‍দিনের চেয়ে মর্যাদাবান। কোরবানীর দিন ও ঈদুল ফিতরের দিনের চেয়ে বেশী মর্যাদাবান।

“পাঁচ বেলা সালাত আদায়, এক জুম’আ থেকে পরবর্তী জুম’আ, এক রমজান থেকে পরবর্তী রমজানের মধ্যবর্তী সময়ে হয়ে যাওয়া সকল (সগীরা) গুনাহের কাফফারা স্বরূপ, এই শর্তে যে, বান্দা কবীরা গুনাহ থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে রাখবে।” (মুসলিমঃ ২৩৩)।

‘যে ব্যাক্তি ভালভাবে পবিত্র হল অতঃপর মসজিদে এলো, মনোযোগ দিয়ে খুৎবা শুনতে চুপচাপ বসে রইল, তার জন্য দুই জুম’আর মধ্যবর্তী এ সাত দিনের সাথে আরও তিনদিন যোগ করে মোট দশ দিনের গুনাহ মাফ করে দেওয়া হয়। পক্ষান্তরে খুৎবার সময় যে ব্যক্তি পাথর, নুড়িকণা বা অন্য কিছু নাড়াচাড়া করল সে যেন অনর্থক কাজ করল।’ (মুসলিমঃ ৮৫৭)।


বাড়ির কাছে মসজিদে যায় না।
অথচ স্ট্যাটাস দেয় একদিন মক্কা যাবো।
“জুম্মা মোবারক”।

গান শুনে- শুনে ঘুমানো নয়।
আল কুরআন শুনে
ঘুমানো অধিকতর ভালো।
“জুম্মা মোবারক”।

আমরা শ্রেষ্ঠ নবি পেয়েছি
শ্রেষ্ঠ কিতাব পেয়েছি
শ্রেষ্ঠ ধর্ম পেয়েছি
আমরা সত্যিই ভাগ্যবান
-আলহামদুলিল্লাহ
“জুম্মা মোবারক”।

** শ্বাস নিচ্ছি আলহামদুলিল্লাহ
ভালো আছি আলহামদুলিল্লাহ
বেঁচে আছি আলহামদুলিল্লাহ।
“জুম্মা মোবারক”।

আবূল আশআস (রহঃ) নামুরা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেছেন, যে ব্যক্তি জুম্মার দিন অযু করে তা তার জন্য যথেষ্ট এবং তা উত্তম কাজ; আর যে ব্যক্তি গোসল করে তবে তা পরমোত্তম কাজ।

আবদুল্লাহ ইবনু মাসলামা (রহঃ) আবূ সায়ীদ খুদরী (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসূল ﷺ বলেছেনঃ প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্কের জন্য জুম্মার দিন গোসল করা কর্তব্য 1।


কুরআন পড়লে
চোখের জ্যোতি বাড়ে
এবং জ্ঞান বাড়ে।-
[সুবাহানাল্লাহ]
জুম্মা মোবারক।

সামনে আসছে রোজা, হালকা কর গোনাহের বোঝা,
যদি কর পাপ চেয়ে নাও মাফ. এসো নিয়ত করি,
আজ থেকে সবাই পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পরি.
জুম্মা মোবারক।

মায়ের সাথে উচ্চস্বরে-
কথা বলোনা
-কারন ‘ মা ‘
তোমাকে কথা বলা শিখিয়েছেন!
জুম্মা মোবারক।

কখনো হতাশ হলে
দুই রাকাত নফল নামাজ পড়ে নিও।
হতাশা কেটে যাবে ইনশাআল্লাহ।
জুম্মা মোবারক।

রাসূল (সাঃ) বলেছেন,
যে ব্যক্তি আমার উপর একবার
দুরুদ শরীফ পাঠ করে,
আল্লাহ তার উপর দশবার
রহমত বর্ষন করেন।
(মুসলিমঃ৪০৮)
জুম্মা মোবারক।

নামাজ পড়ো,
– আল্লাহ তোমায় সঠিক পথ দেখাবে।
– ইনশাআল্লাহ..
জুম্মা মোবারক।

ভালোবেসে স্ত্রীর হাত ধরলেও
সগিরা গুনাহ মাফ হয়ে যায়।
– হযরত মুহাম্মদ(সাঃ)
জুম্মা মোবারক।

আল্লাহর কাছে বেশি কিছু চাই নাহ।
শুধু পাচ ওয়াক্ত নামায পড়ার
তৌফিক দান করুন।
আমিন।
জুম্মা মোবারক।

তুমি ফিরে যাও আল্লাহর দিকে।
সৌভাগ্য ফিরবে তোমার দিকে।
জুম্মা মোবারক।

আমরা বলি আমাদের পাপ বেশি।
-আল্লাহ্ বলেন আমি
তওবাকারীদের ভালোবাসি।
জুম্মা মোবারক।

মসজিদে প্রথম কাতারে যদি
ফকিরও বসে তাকে উঠানোর
ক্ষমতা কোনো রাজার নেই।
এটাই ইসলামের সৌন্দর্য।
জুম্মা মোবারক।

জুম্মা মোবারক ক্যাপশন

আজ পবিত্র জুম্মা মোবারক বা শুক্রবার। সকল মুসলমানদের নিকট অনেক পবিত্র একটি দিন। আজকের এই পবিত্র দিনকে কেন্দ্র করে কিছু জুম্মা মোবারক ক্যাপশন।

উচ্চাকাঙ্কা এমন এক বাহন যাতে আরোহণ করার পরিণাম সীমাহীন ক্লান্তি ছাড়া আর কিছুই নয়। লোভ লালসা, অহংকার এবং পরশ্রীকাতরতা মানুষকে অসীম পাপের পথে ঠেলে দেয়। যারা জীবনে সাফল্য কামনা করে, তাদেরকে উপরোক্ত বিষয় গুলির প্রতি তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখতে হবে। – হযরত আলী (রাঃ)
বিশ্বাস করুন যে আপনার প্রার্থনা কখনই অপচয় হয় না। আপনি কখনই জানেন না যে কখন, কোথায় বা কীভাবে আল্লাহ উত্তর দিচ্ছেন, তবে নিশ্চিতভাবেই জানেন যে তিনি কি করবেন!

 

ঈমানের সঠিক অর্থ হচ্ছে এই, যে অন্তর দিয়ে আল্লাহর সার্বভৌমত্ব ও একাত্ববাদের উপলদ্ধি করবে এবং তার প্রতিটি নির্দেশকে যথাযথ পালন করবে। – হযরত ওমর (রাঃ)।

 মুসলমান যখন মসজিদের দিকে রওনা হয়, সে তার ঘরে ফিরে আসা পর্যন্ত তার প্রতি কদমে আল্লাহ একটি নেকী দান করেন এবং একটি করে গোনাহ মোচন করেন।

-হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)।

 

যৌবনের চেহারাটা মানুষ পছন্দ করেন আর যৌবন কালের ইবাদত স্বয়ং আল্লাহ পছন্দ করেন।

জুম্মা মোবারক।

 

যে পবিত্র থাকতে চায় , তাকে আল্লাহ পবিত্র রাখেন জুম্মা মোবারক। এই বরকতময় শুক্রবারের জন্য আল্লাহকে ধন্যবাদ।

পবিত্র জুম্মার শুভেচ্ছা।

 

শুক্রবারে মসজিদে আজান হওয়ার সাথে সাথে তোমরা কেনাবেচা বন্ধ করো, এবং আল্লাহকে স্মরণ করার জন্য ত্বরা করো কারণ এটাই তোমাদের জন্যে উত্তম যদি তোমরা বুঝ।

 

মুসলিম আমার নাম, কুরআন আমার জান। নামাজ আমার গাড়ি, জান্নাত আমার বাড়ী। আল্লাহ্ আমার রব, নবী আমার সব।

ইসলাম আমার ধর্ম, এবাদত আমার কর্ম।

 

আপনার আসলেই আজকের আইডিয়ার একজন মূল্যবান পাঠক। জুম্মা মোবারক মেসেজ | জুম্মা মোবারক ক্যাপশন এর আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ ধন্যবাদ। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কেমন লেগেছে তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
কোন মন্তব্য নেই
এই পোস্ট সম্পর্কে আপনার মন্তব্য জানান

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন - অন্যথায় আপনার মন্তব্য গ্রহণ করা হবে না।

comment url