নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত - যা একজন নগদ একাউন্ট ব্যবহারকারীর জানা প্রয়োজন

আজকে আমরা মূলত আলোচনা করবো নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত, নগদ একাউন্ট হচ্ছে ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেনের মাধ্যম। নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন। এই আর্টিকেলটি পড়লে নগদ একাউন্ট সম্পর্কে অনেক বিষয় জানতে পারবেন, যা একজন নগদ একাউন্ট ব্যবহারকারী জানা প্রয়োজন। তো চলুন বেশি কথা না বলে নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাক।

নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত

একটি আইডি কার্ড দিয়ে কয়টি নগদ একাউন্ট খোলা যায়

একটি আইডি কার্ড দিয়ে কয়টি নগদ একাউন্ট খোলা যায়, এটা মূলত অনেকেই জানতে চান, কারণ আমরা মূলত কয়েকটা বাটন চেপে নগদ একাউন্ট খুলে ফেলি। আমরা হয়তো কয়েকটা বাটন চেপে নগদ একাউন্ট খুলতে পারি, কিন্তু ওই নগদ একাউন্ট গুলো লেনদেন করার উপযুক্ত না।

লেনদেনের উপযুক্ত করার জন্য অবশ্যই আপনার নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করতে হবে। আমরা মূলত নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম এই পোস্টের ৩ নম্বর প্যারায় উল্লেখ করেছি। সহজভাবে এবং সহজ ভাষায়, একটি আইডি কার্ড দিয়ে ১টা নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

তা আপনি স্থায়ী ভাবে ব্যবহার করতে পারবেন, কোন সমস্যা হবে না। যদি আপনি একটা NID Card দিয়ে ১টার বেশি নগদ একাউন্ট খুলেন, তাহলে আপনি যেকোন সময় সমস্যায় পড়তে পারেন। একটা NID Card দিয়ে একটা নগদ একাউন্ট খোলা নিরাপদ।

নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখার নিয়ম

নগদ একাউন্ট দেখার মূলত দুটি উপায় আছে, নগদ একাউন্ট দেখার দুইটা উপায় কি কি চলুন দেখে নেওয়া যাক।

১. Nagad USSD code ডায়াল করে নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখতে পারবেন।

২. নগতের অফিশিয়াল অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখতে পারবেন।

তাহলে আমরা জানলাম নগদ একাউন্ট দেখার দুইটি নিয়ম, তাহলে চলুন একে একে দুটি নিয়ম দেখে নেওয়া যাকঃ

  • Nagad USSD code দিয়ে নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখার নিয়ম। প্রথমত, USSD code অর্থাৎ নগদ একাউন্ট দেখার কোড *167# ডায়াল করে।
  • নগতের অফিশিয়াল অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট নাম্বার দেখার নিয়ম। প্রথমে আপনাকে প্লে স্টোর থেকে নগদ এর অফিশিয়াল অ্যাপ টি ডাউনলোড করে নিতে হবে। তারপর আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে অ্যাপটি তে লগইন করতে হবে। এরপর আপনার নগদ একাউন্টের নাম্বার এবং অন্যান্য সকল বিষয় গুলো দেখতে পারবেন খুব সহজে।

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম

আপনি যদি নিজেই নিজের নগদ একাউন্ট খুলে থাকেন, তাহলে অবশ্যই আপনাকে আপনার নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করতে হবে। নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার কয়েকটা নিয়ম রয়েছে, একই সাথে কিছু ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন। যেমন, আপনার অরজিনাল আইডি কার্ড আপনার সাথে থাকতে হবে।

অথবা আপনার পরিবারের যে কারো আইডি কার্ড থাকতে হবে, একই সাথে যার আইডি কার্ড তার সশরীরে থাকতে হবে আপনার সাথে। কারণ তার ছবি তুলতে হবে। নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম কিছু স্কিনশর্ট এর মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক।

১. প্রথমে প্লে স্টোর থেকে নগদে অফিশিয়াল অ্যাপ টি ডাউনলোড করতে হবে। এরপর নগদ অ্যাপ এ আপনার নগদ একাউন্টে লগইন করতে হবে। তারপর একদম নিচে কনারে আমার নগদ এখানে ক্লিক করতে হবে।

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম

২. এরপর দেখতে পারবেন, কে ওয়াই সি পুনরায় জমা দিন। এখানে টাইপ করতে হবে।

নগদ কে ওয়াই সি পুনরায় জমা দিন

৩. জাতীয় পরিচয়পত্র, আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের সামনের অংশটি ক্যামেরার সাহায্যে স্ক্যান করুন। আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের পিছনের অংশটি ক্যামেরার সাহায্যে স্ক্যান করুন। স্ক্যান করা হয়ে গেলে পরবর্তী তে ক্লিক করুন।

জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দেন

৪. এরপর আপনার স্ক্যান করা তথ্য দেখতে পারবেন। একই সাথে তথ্যগুলো যাচাই করে নিবেন, সকল ইনফরমেশন ঠিক আছে কিনা। যদি সকল ইনফরমেশন ঠিক থাকে, তাহলে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র তথ্যগুলো যাচাই করুন

৫. এখন আপনার অন্যান্য তথ্য গুলো সিলেক্ট করতে হবে, যেমন লিঙ্গ, লেনদেনের উদ্দেশ্য, পেশা, মুনাফা গ্রহীতা অ্যাকাউন্ট এগুলো আপনার সিলেট করতে হবে। না বুঝলে নিচের স্ক্রিনশটটি দেখুন, সবকিছু সিলেট করা হয়ে গেলে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।

আপনার অন্যান্য তথ্য গুলো সিলেক্ট করতে হবে

৬. এরপর আপনার ছবি তোলা লাগবে, যার আইডি কার্ড তাকে ক্যামেরার সামনে দাঁড় করিয়ে দেন। ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে যে জিনিসগুলো করতে হবে। 

আপনার ছবি তুলনা

  • ছবি তোলার সময় চোখ থেকে চশমা ( যদি থাকে) খুলে ফেলুন।
  • ফ্রেমের মধ্যে আপনার সম্পূর্ণ মুখমন্ডল রাখুন।
  • ছবি তোলার সময় চারপাশে পর্যাপ্ত আলো থাকতে হবে।
  • ছবি তোলার সময় আপনার ক্যামেরা বা চেহারা স্থির রাখুন।
  • ছবি তুলতে কয়েকবার চোখের পলক ফেলুন।

বাকি স্টেপ গুলো খুবই সহজ, আশা করি আপনি নিজে থেকেই করতে পারবেন। যেগুলো মনে হয়েছে আপনি করতে পারবেন না। ওই গুলি মূলত আমরা এই আর্টিকেলের শেয়ার করেছি।

নগদে একদিনে সর্বোচ্চ লেনদেন

নগদে একদিনে সর্বোচ্চ লেনদেন বলতে গেলে, ১ মাসে কত টাকা লেনদেন করতে পারবেন, তা আগে জানা প্রয়োজন। একজন নগদ পার্সোনাল ব্যবহারকারী প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত লেনদেন করতে পারবেন।

নগদে একদিনে সর্বোচ্চ লেনদেন, একটি ব্যক্তিগত নগদ নম্বর থেকে অন্য আরেকটি ব্যক্তিগত নগদ নাম্বারে একদিনে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানি করতে পারবেন।

এই ছিল মূলত আমাদের আজকের নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আর্টিকেল। আশাকরি নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দিতে পেরেছি। যদি কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয়, তাহলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করতে পারেন।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url