সকল সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স দেখার নিয়ম | সকল সিমের ব্যালেন্স চেক

একসময় রাত বিরাতে ফোনের টাকা শেষ হলে আমরা ফ্লেক্সিলোডের দোকানের খোঁজে দিকবিদিক ছুটোছুটি করতাম। অনেকসময় প্রয়োজনীয় কথার মাঝে টাকা শেষ হয়ে যেত ফ্লেক্সিলোডের দোকান বন্ধ থাকায় অনেক ব্যবসায়িক ও আর্থসামাজিক ক্ষতি হত। এসব বিষয় মাথায় রেখে মোবাইল কোম্পানি গুলো এনেছে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার সুযোগ।
সকল সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স দেখার নিয়ম
আমাদের তাই সকল সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স দেখার নিয়ম বা ব্যালেন্স নেওয়ার কোড জানা দরকার। আর তাই আজ আমরা সকল সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স দেখার নিয়ম শিখে নেব।

বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ২০২২ 

বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়া অনেকটায় সহজ। এখানে শুধু একটি বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ডায়াল করলেই ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চলে আসে। বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোডটি হলঃ *874#

বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোডটি ডায়াল করলেই আপনি পেয়ে যাবেন ইমারজেন্সি ব্যালেন্স। বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ব্যবহার করে প্রাপ্ত ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আপনি ভয়েস কল এবং এসএমএস এর জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনি সর্বনিম্ন ১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২০০ টাকা ইমারজেন্সি ব্যালেন্স যা প্রতিমাসে আপনার বাংলালিংক সিমটিতে ব্যবহৃত টাকার অংকের উপর নির্ভর করে।

বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ছাড়াও My Banglalnk App থেকে সরাসরিও ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়া যায়। বাংলালিংক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ব্যবহার করে প্রাপ্ত ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল করতে হবে *124*500# অথবা *875*0#

গ্রামীন ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড | গ্রামীনে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

বর্তমানে বাংলাদেশে গ্রামীনফোন সিম ব্যবহার কারীর সংখ্যা সর্বাধিক। তাই গ্রামীন ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড জানা আমাদের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। গ্রামীন ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ব্যবহার করে আপনি সর্বনিম্ন ১১ টাকা হতে ২০০ টাকা পর্যন্ত ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন। গ্রামীন ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড হলঃ *1010*10# 

গ্রামীন ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ডায়াল করলেই আপনারা পেয়ে যাবেন গ্রামীন এমারজেন্সি ব্যালেন্স। যা আপনারা ভয়েস কল এবং ম্যাসেজের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। গ্রামীনফোন ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ব্যবহার করে প্রাপ্ত ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করতে *121*1*2# ডায়াল করতে হবে।

রবি সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আনার নিয়ম

রবি সিম কম রেটে ভয়েস কল এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ দেওয়ার জন্য দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। রবি সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আনার নিয়ম জানা তাই আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। রবি সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আনার জন্য আপনাকে *8# ডায়াল করতে হবে। রবি সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আনার নিয়ম মেনে ব্যালেন্স পাওয়ার পর *1# অথবা *222# ডায়াল করে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন। 

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স এর কোড

এয়ারটেল কম টাকায় বেশি বেশি ইন্টারনেট দেওয়ার বিভিন্ন অফার দিয়ে থাকে। তাই এই অপারেটর ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ও বাংলাদেশে নেহাৎ কম নয়। এজন্যই আমাদের এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স এর কোড জানতে হবে। এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স এর কোড হল *141# অথবা *8#

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স এর কোড ডায়াল করলেই সাথে সাথে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চলে আসবে। আর এভাবেই এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স এর কোড ব্যবহার করে আপনি সহজেই ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন। 

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নাম্বার

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নাম্বার ব্যবহার করে প্রাপ্ত ইমারজেন্সি ব্যালেন্সটি আপনি ভয়েস কল এবং এসএমএস এর জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নাম্বার ব্যবহার করে প্রাপ্ত ব্যালেন্স চেক করতে আপনাকে *666# ডায়াল করতে হবে।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি মিনিট লোন

আমরা এয়ারটেল ইমারজেন্সি মিনিট লোন ও নিতে পারি। একটি কোড ডায়াল করলেই আমরা সহজেই এয়ারটেল ইমারজেন্সি মিনিট লোন পেতে পারি। এয়ারটেল ইমারজেন্সি মিনিট লোন পেতে আমাদের ডায়াল প্যাডে গিয়ে *141# অথবা *8# ডায়াল করতে হবে।

তাহলেই আপনি পেয়ে যাবেন এয়ারটেল ইমারজেন্সি মিনিট লোন। এয়ারটেল ইমারজেন্সি মিনিট লোন নেওয়ার পর এই মিনিট চেক করতে আপনাকে *666# ডায়াল করে মিনিট সিলেক্ট করতে হবে।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ইন্টারনেট

অনেকসময় কোনো ইম্পর্টেন্ট ফাইল ডাউনলোড করতে করতে অথবা কোনো অফিশিয়াল কলের মাঝে আমাদের ইন্টারনেট ব্যালেন্স শেষ হয়ে যায়। এ সমস্যা সমাধানের জন্য এয়ারটেল নিয়ে এসেছে এয়ারটেল ইমারজেন্সি ইন্টারনেট সুবিধা। এখন এমবি শেষ হলে আর কাজ ফেলে এদিক সেদিক ছুটোছুটি করতে হবে না। খুব সহজেই আমরা ব্যবহার করতে পারি এয়ারটেল ইমারজেন্সি ইন্টারনেট সুবিধা।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ইন্টারনেট নিতে আপনার ডায়াল করতে হবে *141# অথবা *8# এয়ারটেল ইমারজেন্সি ইন্টারনেট ব্যালেন্স চেক করতে *666# ডায়াল করে ইন্টারনেট সিলেক্ট করলেই হবে।

স্কিটো সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স

স্কিটো সিম আজকাল বেশি মেয়াদযুক্ত ইন্টারনেট অফার দিচ্ছে যা অনেকবেশি সাশ্রয়ী এবং স্টুডেন্ট ফ্রেন্ডলি। তাই আজকাল স্কিটো সিম বেশ জনপ্রিয়। স্কিটো সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স পাওয়ার জন্য একটি পদ্ধতিই রয়েছে। স্কিটো সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে স্কিটো সিমের অফিসিয়াল এপ এ যেতে হবে। এখানে আপনি সহজেই স্কিটো সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন।

টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স

টেলিটক বাংলাদেশের একটি সরকারি অপারেটিং সিস্টেম। তাই স্বাভাবিকভাবেই এই সিমের ব্যবহার বাংলাদেশে অনেক বেশি। টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার কোড জানা তাই আমাদের জন্য অতীব জরুরি। টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে *1122# ডায়াল করতে হবে। তাহলেই আমরা পেয়ে যাব টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স। টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার পর আমরা টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল করতে হবে *1122*0#

আমরা আজকে বাংলাদেশে প্রচলিত বিভিন্ন অপারেটরের সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করার কোড সম্পর্কে জানলাম। সকল সিমের ব্যালেন্স দেখার জন্য আমরা উপরের নিয়ম এবং কোড ব্যবহার করে থাকি। এই ছিল আমাদের আজকের আর্টিকেল আশা করি আপনাদের কাজে লেগেছে। সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url